Home / সম্পাদকীয় / আন্তর্জাতিক অঙ্গনে দেশের ভাবমূর্তি নষ্ট করতে ‘আনন্দবাজার’ পত্রিকা মিথ্যাচার প্রচার করছে!

আন্তর্জাতিক অঙ্গনে দেশের ভাবমূর্তি নষ্ট করতে ‘আনন্দবাজার’ পত্রিকা মিথ্যাচার প্রচার করছে!

সম্পাদকীয়

মায়ানমারের রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীকে বাংলাদেশ আশ্রয় দিয়ে যে ভূমিকা পালন করেছে তা বিশ্বের আর কোন দেশ পালন করবে না। সম্প্রতি আনন্দবাজার পত্রিকা বাংলাদেশর রোহিঙ্গা বিষয়ে এবং রাষ্ট্রের পদক্ষেপের বিষয় নিয়ে যেভাবে মিথ্যাচার করেছে এটা সম্পূর্ণ উদ্দেশ্যপ্রণোদীত।
এতগুলো মানুষকে আশ্রয় দিলে যেকোনো দেশেরই যে অনেক সমস্যা হবে, এটা সকলের জানা ছিল। তারপরও নির্যাতিত মানুষগুলোর অসহায়ত্ব দেখে, তাদেরকে আশ্রয় দেওয়ার দাবি এ দেশের অনেকেরই ছিল এবং সেই সিদ্ধান্তই নেওয়া হয়েছিল। এতে বাংলাদেশ প্রশংসিতও হয়েছে। এখন ভাসানচরে রোহিঙ্গাদের থাকার জন্য যথেষ্ট ভালো ব্যবস্থা করা হয়েছে এবং সেখানে তাদেরকে পাঠানো হচ্ছে।

‘আনন্দবাজার’ পত্রিকা তাদের প্রতিবেদনে লিখেছে, সমুদ্রের মাঝে সেটা একটা বিচ্ছিন্ন দ্বীপ, যেখানে রোহিঙ্গাদেরকে বাংলাদেশ সরকার জোর করে পাঠাচ্ছে। সেটা এমন একটা জায়গা যেখানে মানুষ যেকোনো সময় সমুদ্রে তলিয়ে যাবে! অর্থাৎ রোহিঙ্গাদের সাথে বাংলাদেশ সরকার অমানবিক আচরণ করছে এবং এই প্রতিবেদনের মাধ্যমে তারা আন্তর্জাতিক মানবাধিকার প্রতিষ্ঠানগুলোর দৃষ্টি আকর্ষণ করেছে।

তারা নিজেরা কিন্তু রোহিঙ্গাদের জন্য তখন এক সরিষা পরিমাণ দয়া দেখায়নি। দয়া তো দূরের কথা, সেই নির্মমতা, বর্বরতা যখন চলছিল, তখন সামান্য প্রতিবাদটুকুও তারা করেনি বরং মুসলিম নিধনেই তাদের নীরব সমর্থন ছিল। এখন এসেছে দালালি করতে।

ভারতীয় কতিপয় গণমাধ্যম গুলো বরাবরই বাংলাদেশের যে কোন বিষয় নিয়ে মিথ্যাচারে লিপ্ত থাকে। সম্প্রীতি নষ্ট করার জন্য পৃথিবী ভারত ব্যতীত আর কোন দেশ নেয়৷ ভারত সবসময় প্রতিবেশী দেশগুলোর বিরুদ্ধে কুৎসা রটানোর জন্য তৎপর থাকে। অথচ নিজেদের দেশে এখনো সমস্যায় জর্জরিত। নেপাল, পাকিস্তান, চীন, মালদ্বীপ সহ পাশ্ববর্তী দেশগুলোর সাথে ভারতের সম্পর্ক তলানিতে। যার কারণ ভারত ধর্ম জাতি ভেদাভেদ সৃষ্টি করার একটি সাম্প্রদায়িক দেশ।

মতামত

x