|অভিজিৎ মজুমদার, রাঙ্গামাটি|

Litan Chakma ফেসবুক প্রোপ্রাইল অনুযায়ী (লিটন চাকমা) বাড়ি যতসম্ভব রাঙ্গামাটি। তিনি নাকি প্রতিষ্ঠাতা ও সভাপতি Chakma Culture Council Bangladesh) CCCB) এবং Hilly Advance Spoken English Institute – Hasei তে কাজ করেন। বহুত দাপটের ব্যক্তির সঙ্গে তার সম্পর্ক।
তবে তিনি যে পেশায় নিয়োজিত থাকেন না কেন এবং যতোই বড় দাপুটের ব্যক্তির সঙ্গে সম্পর্ক থাকুক না কেন এটা তার ব্যক্তিগত বিষয়, কিন্তু তাই বলে কি তিনি রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে অবস্থান নিবেন? গতকাল ১৩ ফেব্রুয়ারী ২০২১ খ্রিঃ তিনি তার নিজ (Litan Chakma) ফেসবুকের টাইম লাইনে তার পরিচয় নিয়ে একটি স্ট্যাটাস প্রসব করেন,
এতে তিনি তার নাম, লিখেছেন : লিটন চাকমা,
জাত দিয়েছেন : চাকমা,
গোজা দিয়েছেন : লারমা,
গোত্তি দিয়েছেন : বড় চাজ্যা,
জাতীয়তা দিয়েছেন : জুম্ম!!!
ধর্ম দিয়েছেন : বৌদ্ধ।

এখন আমার প্রশ্ন বাংলাদেশের কোন মানুষের কি “জাতীয়তা জুম্ম” আছে??? জাতি ও ধর্ম আলাদা তা ঠিক, এদেশে বহু জাতিগোষ্ঠী সম্প্রদায় রয়েছে।
এদেশে হিন্দু, মুসলিম, বৌদ্ধ ও খ্রিস্টান এবং বহু জাতিগোষ্ঠীর বসবাস। কেউ বাঙ্গালী, কেউ গারো, কেউ সাঁওতাল, কেউ মনিপুরী, কেউ হাজং, কেউ চাকমা, কেউ মারমা, কেউ ত্রিপুরা এছাড়াও নাম উল্লেখ না করা অসংখ্য জাতিগোষ্ঠী রয়েছে৷ জাতি ও ধর্ম হিসেবে আমরা সবাই আলাদা আলাদা হতে পারি, কিন্তু সবার রাষ্ট্র বাংলাদেশ এবং জাতীয়তা সবাই বাংলাদেশী। এটা সংবিধানের স্পষ্ট বিধান৷ যদি কেউ জাতীয়তা বাংলাদেশী স্বীকার না করে সেক্ষেত্রে সে ব্যক্তি দেশদ্রোহী, দেশের সার্বভৌমত্বকে অস্বীকার করে।

বলা বাহুল্য যে, ১,৪৭.৫৭০ বর্গ কিলোমিটার আয়তনের এদেশের ভূখণ্ডে ওনি জন্ম গ্রহণ করে ও পড়াশোনা শিখে এবং রাষ্ট্রের সুযোগ সুবিধা ভোগ করেও Litan Chakma বাংলাদেশের “জাতীয়তা” কে অস্বীকার করেন!! সবচেয়ে আশ্চর্য জনক এবং পরিতাপের বিষয় হলো, কতোবড় দুঃসাহস হলে রাষ্ট্রের ভূখণ্ডে বাস করে রাষ্ট্রের জাতীয়তাকে অস্বীকার করার দঃসাহস দেখাতে পারে?? তার গায়ে হিম্মত বেশি, বাহুতে জোর বেশি, যার কারণে দেশদ্রোহীতা মতবাদ লালন করে সে।

জাতি আর জাতীয়তা কিন্তু এক নয়। Litan Chakma তিনি জাতি হিসেবে চাকমা সেটা আমাদের কারোরই স্বীকার করতে বা মেনে নিতে আপত্তি নেই। কিন্তু কি করে তিনি জাতীয়তা “জুম্ম” হিসেবে দাবী করলেন? কি করে এতো দুঃসাহস হয় তার? কেন তার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহী মামলা হবে না? একজন রাষ্ট্র বিরোধী কিভাবে এদেশে প্রকাশ্যে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে “জাতীয়তা জুম্ম” পরিচয় দিতে পারে? জাতীয়তা বাংলাদেশী অস্বীকার করার মতো এতো দুঃসাহস পায় কোথায় থেকে? আত্মস্বীকৃত রাজাকার ত্রিদিব রায়ের পরিবারের আরেক “দেশদ্রোহী বিশ্বাসঘাতক কুখ্যাত ব্যক্তির” সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক থাকায় কিই লিটন চাকমার এতো দুঃসাহস?

বাংলাদেশ সংবিধানের ২৩ অনুচ্ছেদে তাদের ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী বা উপজাতি হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েছে, তাদের অধিকার আদায়ের অন্যতম নেতা সন্তু লারমা পার্বত্য চট্টগ্রাম চুক্তিতেও নিজেদের উপজাতি হিসেবে চুক্তি করেছে। অথচ এতোদিন উপজাতি কোটায় সুযোগ- সুবিধা ভোগ করে এখন নিজেদের আদিবাসী দাবি করছে! লিটন চাকমার গেঞ্জিতে আদিবাসী লোগো যুক্ত! এটা সংবিধানকে অবমাননার শামিলও বটে।

উপজাতীয়দের মধ্যে বিচ্ছিন্নতাবাদী সন্ত্রাসী গোষ্ঠী ও তাদের মদদপুষ্ট লোকেরাই বাংলাদেশ নামক রাষ্ট্রকে অস্বীকার করে। তারা বাংলাদেশের পার্বত্য চট্টগ্রাম মূল ভূখন্ড হতে আলাদা করে “জুম্মল্যান্ড নামক রাষ্ট্র গঠন করতে অপতৎপরতা চালাচ্ছে দীর্ঘ বছর ধরে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে জুম্মল্যান্ড গঠন করার প্রচার চালাচ্ছে, জুম্মল্যান্ডের মুদ্রা, নোট, জাতীয় পতাকা, সংবিধান খসড়া ও সরকার প্রতিনিধিও চুড়ান্ত করে প্রচার চালাচ্ছে। লিটন চাকমা তাদেরই উত্তরসূরী ও মতাদর্শী, তাই তিনি নিজের জাতীয়তা জুম্ম পরিচয় দিয়েছেন। তার লেখাতে তো তিনি নিজেকে জাতি হিসেবে চাকমা পরিচয় দিয়েছেন, তাহলে তো আর জুম্ম’কে জাতি বলারও তার সুযোগ নেই। সুতরাং তিনি জাতীয়তা বাংলাদেশীর স্থলে জাতীয়তা “জুম্ম” হিসেবে নিজের অবস্থান পরিষ্কার করেছেন এবং বাংলাদেশ নামক রাষ্ট্রের সার্বভৌমত্বকে অস্বীকার করেন। এটা সম্পূর্ণ রাষ্ট্রদ্রোহিতার শামিল।

গোয়েন্দা সংস্থা, প্রশাসন ও আইন- শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর প্রতি অনুরোধ এই দেশদ্রোহী বিশ্বাসঘাতক Litan Chakma কে অতিদ্রুত সময়ের মধ্যে গ্রেফতার করে রাষ্ট্রদ্রোহী মামলায় জেলহাজতে প্রেরণ করার জন্য।

তার, ফেসবুক পোস্টের লিংক…
https://www.facebook.com/100004698932667/posts/1745532348946713/?app=fbl

আইডির প্রোপ্রাইল লিংক…
https://www.facebook.com/litan.chakma.180

এডিট নিউজ, উক্ত মুক্তমত প্রকাশ হওয়ার পরে লিটন চাকমা তার ফেসবুক টাইমলাইন হতে পোষ্টটি হাইড করেছে, বর্তমানে তার ফেসবুকে পোষ্টটি আর প্রদর্শন করছে না। নিউজ এডিট ১৫ ফেব্রুয়ারী সকাল ৯ টা ৫৬ মিনিট।

মুক্তমতের লেখা সম্পন্ন লেখকের এর সঙ্গে হিল নিউজ বিডি’র সম্পাদকীয় নীতি এক নয়।

By admin

মতামত

x