||তাপস কুমার পাল||

পার্বত্য চট্টগ্রামে উপজাতি ইউপিডিএফ প্রসিত গ্রুপের সন্ত্রাসীদের নির্মমতা ক্রমশই বৃদ্ধি পাচ্ছে।তাদের হিংস্র ছোবল থেকে রক্ষা পাচ্ছেনা সাধারণ খেটে খাওয়া কুলি, দিনমজুর এবং হতদরিদ্র কৃষকরাও।
উপজাতি সন্ত্রাসীদের পাশবিক নির্যাতনের ধারাবাহিকতার অংশ হিসেবে আজ ১৮ ই মার্চ রোজ বৃহস্পতিবার সকাল ১১.৩০ মিনিটের দিকে খাগড়াছড়ির মাটিরাঙ্গা উপজেলায় চাঁদার টাকা না দেয়ার অভিযোগে ১১ গ্রামবাসীকে বেধম প্রহার করে রক্তাক্ত করেছে উপজাতি সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা। সর্বশেষ ৩ রাউন্ড ফাঁকা গুলিও করে!

এলাকাবাসীর ভাষ্যমতে মাটিরাঙ্গা উপজেলার ২ নং ইউনিয়নের ৩ নং ওয়ার্ডের মোল্লা বাজার ৮২ টিলা ধূসরা নামক স্থানে গ্রামের অসহায় হত-দরিদ্র কিছু মানুষ, কচু-হলুদ চাষাবাদের জন্য পাহাড়ের নিজস্ব জায়গায় অবস্থান নেয়।
এ সময় সন্ত্রাসীরা এলাকাবাসীর চাষাবাদের খবর পেয়ে সেখানে যায় এবং মোটা অংকের চাদা দাবি করে।
খেটে খাওয়া অসহায় কৃষকেরা মোটা অংকের চাঁদা দিতে অপারগ প্রকাশ করায় তাদেরকে জায়গা ছেড়ে চলে যেতে বলে এবং পিটিয়ে ও ছুরিকাঘাত করে কয়েকজনকে রক্তাক্ত করে।
সাধারণ মানুষের প্রশ্ন উপজাতি সন্ত্রাসীদের এরুপ হত্যাকাণ্ড কি কখনো বন্ধ হবেনা???
আর কতদিন পাহাড়ের মানুষ সন্ত্রাসীদের বন্দিশালায় আবদ্ধ থাকবে?
এলাকাবাসীর দাবী, হামলায় জড়িত সকল উপজাতি সন্ত্রাসীদের দ্রুত গ্রেফতার করে আইনের আওতায় এনে কঠিন শাস্তি প্রদান করতে হবে। অন্যথায় সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে এলাকাবাসীর কঠোর পদক্ষেপ নিতে বাধ্য হবে।

By admin

মতামত

x