বিনোদন ডেস্ক

তনুশ্রী দত্ত এএনআইকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে বলেছেন, রাজ থ্যাকারের নেতৃত্বাধীন মৌলবাদী সংগঠন মহারাষ্ট্র নভনির্মাণ সেনার (এমএনএস) কাছ থেকে তিনি হুমকি পেয়েছেন। নানা পাটেকারের বিরুদ্ধে তিনি যেসব অভিযোগ করছেন, তা থেকে তাঁকে সরে আসতে বলা হয়েছে। তিনি আশঙ্কা করছেন, তাঁর ওপর সহিংস হামলা হতে পারে। তাই পুরো ব্যাপারটি তিনি মুম্বাই পুলিশকে জানিয়েছেন। মুম্বাই পুলিশের কাছে নিজের নিরাপত্তা চেয়েছেন তিনি।

 

এবার জানা গেছে, বলিউডের বিতর্কিত নায়িকা রাখী সাওয়ান্তকে হত্যার হুমকি দেওয়া হয়েছে। তিনি অভিযোগ করে বলেছেন, গতকাল মঙ্গলবার তাঁকে ফোন করে একজন অশ্রাব্য ভাষায় গালিগালাজ করে হত্যার হুমকি দিয়েছেন। রাখী বলেন, ‘তনুশ্রী আর নানা বিতর্কে মুখ খোলায় আমার সঙ্গে এমন ঘটনা ঘটছে।’ তবে এ ব্যাপারে তিনি মুম্বাই পুলিশের কাছে এখনো কোনো অভিযোগ করেননি।

 

২০০৪ সালের ‘মিস ইন্ডিয়া’ ও বলিউড তারকা তনুশ্রী দত্ত শক্তিমান অভিনেতা নানা পাটেকারের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ করেছেন। ভারতের টিভি চ্যানেল নিউজ এইটিনকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তনুশ্রী দত্ত অভিযোগ করেন, ২০০৯ সালে মুক্তি পাওয়া ‘হর্ন ওকে প্লিজ’ ছবি করতে গিয়ে নানা পাটেকার তাঁকে যৌন হেনস্তা করেছেন। নানা পাটেকারের সঙ্গে তাঁর ঘটে যাওয়া ঘটনার জের ধরে তো প্রায় দেশান্তরিই হয়েছিলেন তনুশ্রী। সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্র থেকে ফিরে এসে জানালেন, ‘হর্ন ওকে প্লিজ’ ছবির এক আইটেম গানে কাজ করার কথা ছিল। নানা পাটেকার সে সময় খারাপ আচরণ করেছিলেন তাঁর সঙ্গে। কোরিওগ্রাফার গণেশ আচার্য আর পরিচালক রাকেশ সারাঙ্গ তাঁকে ব্যাপারটি চেপে যেতে বলেছিলেন। নানা পাটেকার অনুচিতভাবে গায়ে হাত দিতে চাইলে তিনি কেন চেপে যাবেন? শুটিং থেকে চলে এসেছিলেন তিনি। এ জন্য একদল লোককে দিয়ে তাঁর গাড়িতে হামলাও চালানো হয়। সে সময় তাঁর গাড়িতে মা-বাবাও ছিলেন। প্রতিকার দূরে থাক, এরপর ছবির আইটেম গান থেকে তাঁকে বাদ দেওয়া হয়। তাঁর বদলে নেওয়া হয় রাখী সাওয়ান্তকে।

 

সংবাদ সম্মেলনে রাখী সাওয়ান্ত, ইনসেটে তনুশ্রী দত্ত

সংবাদ সম্মেলনে রাখী সাওয়ান্ত, ইনসেটে তনুশ্রী দত্ত

সম্প্রতি দেওয়া সাক্ষাৎকারে তনুশ্রী দত্ত বলেন, ‘আমার বদলে রাখী সাওয়ান্ত! এর চেয়ে বড় অপমান আর কী হতে পারে! পরে শুনেছিলাম, সেটে এসে আমাকে নিয়ে রাখী সাওয়ান্ত অনেক খারাপ মন্তব্য করেছেন৷’ জানা গেছে, ওই সময় ‘হর্ন ওকে প্লিজ’ ছবির সেটে গিয়ে রাখী বলেছিলেন, ‘তনুশ্রীর গায়ে হিরে-সোনা লাগানো আছে যে ওকে ছোঁয়া যাবে না?’

 

এরপর তনুশ্রী দত্তের ওপর খেপেছেন রাখী সাওয়ান্ত। তনুশ্রী দত্তকে মাদকাসক্ত দাবি করে তিনি বলেন, ‘তাঁর সব অভিযোগ মিথ্যা। নানা পাটেকারের মতো মানুষ হয় না, তনুশ্রীর আসলে মাথা ঠিক নেই৷’ তিনি আরও বলেন, ‘ও আমাকে নিয়ে প্রশ্ন করেছে, কিন্তু তনুশ্রী কী? এত দিন কেন চুপ করে ছিল? ১০ বছর ধরে কোমায় ছিল যে মুখ খুলতে পারেনি? এখন এত কথা ফুটছে ওর মুখে? বলিউডে ওর কোনো কাজ নেই, কেউ ওকে কাজ দেয় না৷ আমেরিকায় ভিক্ষা করত, সেখান থেকে তাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে৷ ইংরেজিতে দু-একটা কথা বলল আর সবাই তা সত্যি মেনে ওকে সমর্থন করছে৷ পরে ওই সেটে আমিও কাজ করেছি। ওখানে কেউ নানা পাটেকারের বিরুদ্ধে কোনো কথা বলেনি৷’

 

রাখী সাওয়ান্ত আরও বলেন, ‘নানা পাটেকার যদি তনুশ্রীর বিরুদ্ধে মামলা করেন, তাহলে আমার শেষনিশ্বাস পর্যন্ত তাঁকে সমর্থন করে যাব৷’

By admin

মতামত

x