||আব্দুর রহিম বাদশা, রাঙ্গামাটি||

পার্বত্য চুক্তি স্বাক্ষরিত হওয়ার প্রায়ই ২৪ বছর পেরিয়ে গেল! পাহাড় কি শান্ত? পার্বত্য চট্টগ্রামে বসবাসরত সাধারণ ও শান্তিপ্রিয় মানুষগুলো শান্তিতে আছে কি?
এই প্রশ্নোত্তর খুজতে কথা বলি সাধারণ পার্বত্য বাসীর সাথে।
তাদের মধ্যে কেউ কেউ বলে পার্বত্যচুক্তি হয়েছে কিছু মানুষের উপকারের জন্য, যেমন: সন্তু লারমা, রাজনৈতিক নেতাসহ,শান্তিবাহিনীতে কর্মরত জনবল যাদের কার্যক্ষম নাই। তাদের বেচে থাকার পথ সুগম করা হয়েছে। তাদের শান্তিবাহিনী থেকে ছুড়ে ফেলে দিবে, এই উপলব্ধি করতে পারে, তাই অকেজো অস্ত্রসহ আত্মসমর্পণ করে। ভাঙ্গা মরিচাধরা অস্ত্র জমা দিয়েছে কিছুসংখ্যক। আবার কেউ কেউ বলছে, চুক্তিতে শান্তিবাহিনী নাম মোছন হয়েছে । মোছন হয়ে সশস্ত্র সন্ত্রাস তিনটি দল সৃষ্টি হয়। এতে সাধারণ পার্বত্য বাসী বিপদে পরেছে।


সাধারণ উপজাতিদের মন্তব্য, আমরা চুক্তির আগে, “যেমন ছিলাম এখন ঠিক তেমন” আমাদের কোন পরিবর্তন হয়নি। বরং আগের চেয়েও খারাপ হয়েছে। তিনি আরও বিস্তারিত ভাবে বলেন, আমরা টিনের ঘর তৈরি করলে চাঁদা দিতে হয়। আরও দিতে হয় হাঁস-মুরগি ও ছাগল-গরু লালন পালন, এমন কি ঘরে যুবতী মেয়ে থাকলে তার জন্যেও। আমাদের মত বাঙ্গালি ভাইদেরও চাঁদা দিতে হয়। তাই আমরা সাধারণ শান্তিপ্রিয় উপজাতি ও বাঙ্গালি খুব বিপদে আছি। এই বিপদ থেকে পরিত্রাণ পাবো কি?

By admin

মতামত

x