||নিজেস্ব প্রতিনিধি||

দীর্ঘ ৩৮ ঘণ্টা পরও প্রশাসন তাকে উদ্ধার করতে ব্যর্থ হওয়ায় অদ্য (সোমবার) ৩ জানুয়ারী ভোর থেকে উপজেলা সদর হাটবাজারে দোকানপাট বন্ধ রেখে সড়কে টায়ার জ্বালিয়ে প্রতিবাদ করেন ব্যবসায়ীরা।

সকাল থেকে অপহৃত ইমানকে উদ্ধার দাবিতে মানিকছড়ি উপজেলার আওয়ামীলীগ নেতাকর্মীরা অঘোষিতভাবেই সড়ক অবরোধ করেন। এসময় খাগড়াছড়ি হাটহাজারী চট্টগ্রাম সড়কে যানচলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

এদিকে পূর্ব ঘোষিত কর্মসুচীর অংশ হিসেবে আওয়ামীলীগ ও সহযোগী অঙ্গসংগঠন, ব্যবসায়ী ও সাধারণ জনগণ সকাল ১১টায় বিক্ষোভ মিছিল বের করেন। আওয়ামীলীগের দলীয় অফিস চত্ত্বর থেকে সভাপতি মো. জয়নাল আবেদীন ও সাধারণ সম্পাদক মো. মাঈন উদ্দীন-এর নেতৃত্বে সিনিয়র সকল নেতাকর্মী দুই সহস্রাধিক লোক সমাগমে বিক্ষোভ মিছিল মহামুনি বাসস্টেশনে গিয়ে সমাবেশের মাধ্যমে কর্মসুচী ঘোষণা করেন নেতৃবৃন্দ।

বিক্ষোভ সমাবেশে যুবলীগ সভাপতি মো. সামায়উন ফরাজী সামুর সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন, সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান এম.এ. কাদের, আওয়ামীলীগ সহসভাপতি এসএম রবিউল ফারুক, জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ন সম্পাদক ও জেলা পরিষদ সদস্য এম.এ.জব্বার, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান এম.এ.রাজ্জাক, আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক মো. মাঈন উদ্দীন ও আওয়ামীলীগ সভাপতি মো. জয়নাল আবেদীন।

মো.ইমান হোসেন উদ্ধারে প্রশাসন ব্যর্থ হয়েছেন বলে মন্তব্য করেছেন, মানিকছড়ি উপজেলা আওয়ামীলীগ ও সহযোগি অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা। অপহরণের ৪৮ ঘন্টা হলেও ইমানকে উদ্ধারে প্রশাসন তেমন তৎপর নয় বলে অভিযোগ করা বিক্ষোভ সমাবেশ থেকে।

পাহাড়ের অসাম্প্রদায়িক চেতনার রাজনীতির মাঝে সাম্প্রদায়িক রাজনীতি সৃষ্টি করতে উপজাতি সন্ত্রাসী গোষ্ঠী অপহরণ, চাদাঁবাজি, খুন-গুম করে পরিবেশ অশান্ত করছে। যুবলীগ নেতা ইমান হোসেনকে উপজাতি সন্ত্রাসী গোষ্ঠী অপহরণ করে দুঃসাহসিকতার যে পরিচয় দিয়েছে তার ফলাফল হবে ভয়াবহ। ৩ জানুয়ারী সন্ধ্যা ৬টার মধ্যে ইমানকে উদ্ধারে ব্যর্থ হলে ৪ জানুয়ারী মঙ্গলবার মানিকছড়িতে অবরোধ পালন হবে বলে হুশিয়ারী দেওয়া হয় বিক্ষোভ সমাবেশ থেকে। তাতেও যদি উদ্ধার না হয় ৫ জানুয়ারী খাগড়াছড়িতে অনির্দিষ্টকাল হরতাল পালন হবে বলে জানান আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীরা।

উল্লেখ্য যে, খাগড়াছড়ি জেলার মানিকছড়ি উপজেলার তিনটহরী ইউপির যুবলীগ সাংগঠনিক সম্পাদক মো. ইমান হোসেনকে গত (শনিবার) ১ জানুয়ারী ২০২২ খ্রিস্টাব্দে রাত আনুমানিক ৯টায় অপহরণ করে। মো. ইমান হোসেন (৩০) বড়বিল রমিজ মিয়ার ছেলে। মো. ইমান হোসেনের পারিবারিক সূত্রের মতে জানা যায়, অপহরণের সাথে পার্বত্য চুক্তি বিরোধী সন্ত্রাসী সংগঠন ইউপিডিএফ প্রসিত মূল জড়িত থাকতে পারে।

By admin

মতামত

x