খাগড়াছড়ি জেলার দীঘিনালায় গত ১২ মার্চ ভোর রাতে সেনাবাহিনীর হাতে অস্ত্রসহ নিজবাড়ি হইতে আটক হয় ইউপিডিএফ কোম্পানি কমান্ডার নবায়ন চাকমা। তখন সেই শারীরিক ভাবে অসুস্থ ছিল৷ সেনাবাহিনী চিকিৎসার জন্য তাকে দীঘিনালা হাসপাতালে প্রেরণ করে। চিকিৎসারত অবস্থায় হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে তার মৃত্যু হয়। এই ঘটনাকে ইউপিডিএফ সন্ত্রাসীরা হত্যাকাণ্ড হিসেবে দাবি করেছে। তারই প্রতিবাদে সন্ত্রাসীরা ২১ শে মার্চ খাগড়াছড়ি জেলায় আধা বেলা সড়ক অবরোধের ডাক দেয়। এই অবরোধ কর্মসূচী চলাকালীন সময় ইউপিডিএফ এর সহযোগী অঙ্গসংগঠন, বৃহত্তর পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ (পিসিপি)-এর লক্ষ্মীছড়ি উপজেলা শাখার সহ-সভাপতি রিটন চাকমা ও গণতান্ত্রিক যুব ফোরামের উপজেলা শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক শুভধন চাকমা সড়কে অবস্থান নিয়ে নাশকতা সৃষ্টি করে। ভোর রাত থেকে তারা সড়কে টায়ার জ্বালিয়ে অবস্থান নেয়। সকাল সাড়ে ৭টা থেকে সড়কে যাতায়াত করা মানুষের চলাচলের উপর বিঘ্নিত সৃষ্টি করে এবং বাঙ্গালীদের মারধর করে। পরে খবর পেয়ে সেনাবাহিনী ঘটনারস্থলে গিয়ে তাদেরকে আটক করে।

সূত্রে জানা গেছে, অদ্য সোমবার (২১ মার্চ ২০২২) সকাল সাড়ে ৭টার দিকে পিসিপি ও যুব ফোরামের নেতা-কর্মীরা উপজেলার সমুর পাড়া এলাকায় ইউপিডিএফ’র ডাকা সড়ক অবরোধের সমর্থনে রাস্তায় নাশকতা করছিলেন। এ সময় লক্ষ্মীছড়ি সেনা জোন থেকে একদল সেনা সদস্য সেখানে গিয়ে উপস্থিত হয়ে তাদেরকে ধাওয়া করে আটক করে।

আটকের পর তাদেরকে লক্ষ্মীছড়ি সেনা জোনে নিয়ে যাওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে।

By admin

মতামত

x