গতকাল শুক্রবার (১৫ এপ্রিল ২০২২ খ্রিস্টাব্দ) সকাল আনুমানিক ১১টার সময় খাগড়াছড়ি হতে একটি লোকাল সিএনজি যোগে রাঙ্গামাটি জেলার এক বাঙ্গালী যুবক রাঙ্গামাটির উদ্দেশ্য রওনা হয়। খাগড়াছড়ি ৯ মাইল নামক স্থানে ড্রাইভারের সাথে এক উপজাতি মোটরসাইকেল চালকের ‘সাইড’ দেওয়াকে কেন্দ্র করে বাকবিতণ্ডা হয়। এর জের ধরে ‘উপজাতি সন্ত্রাসী মোটরসাইকেল চালক’ আরো ২/৩টি মোটরসাইকেল খবর দিয়ে এনে বাঙ্গালী সিএনজি চালককে গাড়ি থেকে নামিয়ে এলোপাতাড়ি ভাবে বেধড়ক মারধর করে আহত করে। এই বর্বরোচিত ঘটনা থেকে অনুমেয় যে, পার্বত্য উপজাতিদের একটি অংশ অমানুষ এবং জানোয়ার রুপি। তারা এই রাষ্ট্রের বৃহৎ বাঙ্গালী জনপদ থেকে সুযোগ-সুবিধা নিয়ে আজ অকৃতজ্ঞতার পরিচয় দিচ্ছে।

এখানে ভিডিও তে দেখা যাচ্ছে সড়কে প্রকাশ্যে দিবালোকে উপজাতি সন্ত্রাসী হায়নারা একজন নিরীহ বাঙ্গালীকে গাছের ঢাল দিয়ে এলোপাতাড়ি ভাবে বেধড়ক মারধর করছে।

মারধরের শিকার বাঙ্গালীর নাম জহির, সেই খাগড়াছড়ি শালবাগান এলাকার বাসিন্দা। হামলাকারীদের মধ্যে দুইজনকে প্রায় সময় ৯ মাইল নামক স্থানে দেখা যায়। তারা ইউপিডিএফ মূল ও জেএসএস সংস্কার করেন বলেও সূত্রে জানা যায়।

পিকআপে থাকা আরেক বাঙ্গালী গোপনে এই আংশিক ভিডিও’টি ধারণ করেন। মারধরের ভয়াবহতা সম্পর্কে বলতে গিয়ে বাঙ্গালীটি কেঁদে ফেলেন। তার চোখে এই ঘটনা ছিল সম্পূর্ণ সাম্প্রদায়িক মনোভাবের।শুধুমাত্র বাঙ্গালী হওয়ার কারণে এই হামলার ঘটনা ঘটে।

By admin

মতামত

x