গতকাল মঙ্গলবার (১৯ এপ্রিল ২০২২ খ্রিস্টাব্দ) বিকেলে অপহৃত বাঙ্গালী মোটরসাইকেল চালকের লাশটি উদ্ধার করা হয় বান্দরবান জেলার নাই্যক্ষংছড়ি উপজেলার বাইশারী ইউনিয়নের আলিক্ষ্যং মৌজার রাঙ্গাঝিরি গ্রামের শামছড়ির আগা থেকে।
ঘটনার বর্ণনা দিয়ে নিহতের শশুর মোক্তার মেম্বার জানান, শহিদুল তার ঝি জামাই। সে মোটর সাইকেল চালিয়ে জীবন চালায়। তার মেয়ের সাথে বিয়ে হয় মাত্র ৪ মাস আগে। রোববার (১৭ এপ্রিল) ইফতারের পর তার ঝি জামাই শহীদুল কে, কে বা কারা মোটর সাইকেল ভাড়ার জন্যে ডেকে নিয়ে যায়। এর পর তার আর হদিস পাওয়া যাচ্ছিলো না। এরই মধ্যে মঙ্গলবার দুপুরে খবর আসে তার ঝি জামাইর গাড়িটি রাঙ্গাঝিরির দিকে গিয়েছিলো সে দিন। তাই তারা সেদিকেই খুঁজতে যায়। পরে মঙ্গলবার ৩টার পর শহিদুলের মোটর সাইকেলটি গভীর জঙ্গলের পাশে খোঁজ মিলে। পরে লাশের সন্ধানও পান তারা। শেষে লাশটি পুলিশ এসে উদ্ধার করে বিকেলে। লাশটির পিটে ১০টি, কোমরে ৬টি আঘাত রয়েছে। আর চোখ উপড়ে ফেলা হয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্যে বুধবার লাশটি বান্দরবার পাঠানো হচ্ছে।
পুলিশ ঘটনার কথা স্বীকার করেছেন।

একটি সূত্র জানিয়েছে, পার্বত্য চুক্তি পক্ষ জেএসএস সন্তু লারমার সন্ত্রাসীরা বাঙ্গালী মোটরসাইকেল চালককে অপহরণ করে নিয়ে হত্যা করে৷ এই হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জেএসএস সরাসরি জড়িত।

এদিকে বাইশারী ইউপি চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আলম জানান, মঙ্গলবার বিকেলে লাশ উদ্ধার হয় নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা সদর থেকে ৩০ কিলোমিটার দূরের রাঙ্গাঝিরির দূর্গম পাহাড়ী এলাকা থেকে।
পুলিশ লাশ উদ্ধারের সময় তিনি নিজেও সেখানে ছিলেন। ঘটনার বিষয়ে মামলা প্রক্রিয়া চলছে।

By admin

মতামত

x