Home / আন্তর্জাতিক / নৃশংস ঘটনার সাক্ষী দেশ, ধর্ষণ করে ট্রেন থেকে ছুঁড়ে ফেলা হল তরুণীকে!

নৃশংস ঘটনার সাক্ষী দেশ, ধর্ষণ করে ট্রেন থেকে ছুঁড়ে ফেলা হল তরুণীকে!

অনলাইন ডেস্ক- মুম্বইঃ ফের একবার নৃশংস ঘটনার সাক্ষী দেশ। ২০ বছরের এক তরুণীকে ধর্ষণ করে চলন্ত ট্রেন থেকে ধাক্কা মেরে ফেলে দেওয়ার অভিযোগ। ভয়ংকর এই ঘটনাটি ঘটেছে মহারাষ্ট্রের নভি মুম্বইতে। জেজে হাসপাতালে এখন মৃত্যুর সঙ্গে লড়াই করছেন ওই তরুণী। তিনি তিতওয়ালার বাসিন্দা বলে জানা গিয়েছে।

পোয়াইতে গৃহ পরিচারিকার কাজ করেন তিনি। ঘটনাকে কেন্দ্র করে ব্যাপক চাঞ্চল্য তৈরি হয়েছে। ঘটনার বিষয়টি সামনে আসতেই তীব্র চাঞ্চল্য তৈরি হয়েছে। ইতিমধ্যে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। যদিও এখনও পর্যন্ত এই ঘটনায় কাউকে গ্রেফতার করা হয়নি। অভিযুক্তদের খোঁজে শুরু হয়েছে তল্লাশি। দেখা হচ্ছে স্টেশনে সিসিটিভি ক্যামেরা। পুরো ঘটনা খতিয়ে দেখছে ভাশি রেল পুলিশ।

আধিকারিকরা জানিয়েছেন, ভাশি ক্রিক ব্রিজের সামনে ওই তরুণীকে রেললাইনের ধারে অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। তাঁর শরীরে রয়েছে একাধিক আঘাতের চিহ্ন। গত মঙ্গলবার একটি লোকাল ট্রেনের মোটরম্যান ওই তরুণীকে রেললাইনের ধারে পড়ে থাকতে দেখে রেল পুলিশে খবর দেন। ঘটনার খবর পাওয়ার পরেই ঘটনাস্থলে পৌঁছয় পুলিশ আধিকারিকরা। ভাশি জিআরপি-র পুলিশ আধিকারিকরা ঘটনাস্থলে যান এবং দেখতে পান, ওই তরুণী জীবিত রয়েছেন।

সঙ্গে সঙ্গে তাঁকে ভাশি মিউনিসিপাল হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখান থেকে তাঁকে মুম্বইয়ের জেজে হাসপাতালে পাঠানো হয়। কার্যত এই মুহূর্তে মৃত্যুর সঙ্গে লড়াই করছে ওই তরুণী! নৃশংস এই ঘটনায় রীতিমত গর্জে উঠেছে মহারাষ্ট্রের মানুষ। এমন ঘটনা দুঃখজনক।

এক আধিকারিকরা জানিয়েছেন যে, যে চিকিৎসকরা ওই তরুণীকে পরীক্ষা করেছেন, তাঁরা জানিয়েছেন যে, ট্রেন থেকে ফেলে দেওয়ার আগে তাঁর যৌন নিগ্রহ করা হয়েছিল। তদন্তকারীদের সন্দেহ, ওই তরুণীকে খুন করার উদ্দেশেই দুষ্কৃতীরা তাঁকে ট্রেন থেকে ফেলে দেয়। কিন্তু কোনও ভাবে সে বেঁচে যায়।

মতামত

x