Home / ফেসবুক মন্তব্য / চিম্বুক পাহাড়ে ৫ তারকা হোটেল নির্মাণকে বাধাগ্রস্ত করতে নিরহ ম্রোদের দিয়ে কথিত লংমার্চ করতে বাধ্য করেছে পিসিজেএসএস!

চিম্বুক পাহাড়ে ৫ তারকা হোটেল নির্মাণকে বাধাগ্রস্ত করতে নিরহ ম্রোদের দিয়ে কথিত লংমার্চ করতে বাধ্য করেছে পিসিজেএসএস!

||তাপস কুমার পাল, পার্বত্য চট্টগ্রাম||

পাহাড়ের বিষফোঁড়া হিসেবে পরিচিত উপজাতি বিচ্ছিন্নতাবাদী সংগঠন পিসিজেএসএসের জন্ম হয়েছে পাহাড়কে বাংলাদেশে থেকে বিচ্ছিন্ন করে স্বাধীন একটি রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা করার জন্য।
স্বপ্নের সেই স্বাধীন রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার প্রধান বাধা হয়ে দাড়িয়েছে পাহাড়ের উন্নয়ন।
পাহাড়ে স্কুল-কলেজ, পর্যটন স্পট, রাস্তাঘাট যতই উন্নত হচ্ছে সাধারণ মানুষের অবাধ চলাফেরা ততই বৃদ্ধি পাচ্ছে। ফলে বিচ্ছিন্নতাবাদী সংগঠনগুলোর চাঁদাবাজি এবং অস্ত্র প্রশিক্ষণের ক্ষেত্রে মারাত্মক সমসস্যার সম্মুখীন হচ্ছে।
তাই জন্মলগ্ন থেকেই উপজাতি বিচ্ছিন্নতাবাদী সংগঠন পিসিজেএসএস পাহাড়ের প্রত্যেকটা উন্নয়ন কাজকে বাধাগ্রস্ত করতে মড়িয়া হয়ে উঠে।
তারই ধারাবাহিকতার অংশ হিসেবে বান্দরবানের চিম্বুক পাহাড়ে ৫ তারকা হোটেন নির্মাণ বন্ধে উঠেপড়ে লেগেছে পিসিজেএসএস।
চিম্বুক পাহাড়ে ৫ তারকা হোটেল নির্মাণ বন্ধের দাবীতে সাধারণ খেটে খাওয়া ম্রোদেরকে অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে এবং জীবননাশের হুমকি দিয়ে আজকে ৭/২/২১ ইং বান্দরবান অভিমুখে কথিত লংমার্চ করিয়েছে জে এস এস।

কথিত এই লংমার্চকে জে এস এস প্রকাশ করতেছে চিম্বুক পাহাড়বাসীর লংমার্চ!! সত্যিকারার্থে চিম্বুক পাহাড়ে কোন মানুুষ বসবাস করেনা অর্থাৎ এটি একটি অনাবাদী পরিত্যাক্ত খাস ভুমি।

কথিত এই লংমার্চ জে এস এসের যে সাজানো নাটক তার প্রমান গত…. তারিখে হোটেল নির্মানের পক্ষে ম্রোদের লংমার্চ।

সরকারের কাছে পাহাড়বাসীর জোর দাবী হচ্ছে উন্নয়ন বিরোধী এবং সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্টকারী রাষ্ট্রদোহী উপজাতি বিচ্ছিন্নতাবাদী সন্ত্রাসী সংগঠন জে এস এসের সকল কার্যক্রম অবিলম্বে নিষিদ্ধ করতে হবে।

মতামত

x