Home / ব্লগার / সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে যারা কথা বলবে নিঃসন্দেহে তাদের অবস্থান অখণ্ড বাংলাদেশের বিরুদ্ধে!

সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে যারা কথা বলবে নিঃসন্দেহে তাদের অবস্থান অখণ্ড বাংলাদেশের বিরুদ্ধে!

||লেখক: তাপস কুমার পাল, রাঙামাটি||

মানব সম্পদ,প্রাকৃতিক সম্পদ,উর্বর ভূমি, নদ নদী আবৃত সবুজের সমারোহে আচ্ছাদিত আমাদের মাতৃভূমি প্রিয় বাংলাদেশ।
আল্লাহ প্রদত্ত বাংলাদেশের এ সম্পদ সমূহকে অনেকেই সহ্য করতে পারছেনা।
তাই আমাদের গৌরবাম্বিত ইতিহাস, ঐতিহ্য এবং সংস্কৃতি ধ্বংসের জন্য কিছু কুচক্রী মহল শুরু থেকেই বাংলাদেশকে নিয়ে বিভিন্ন সময়ে নানামুখী ষড়যন্ত্রের জাল বুনেছে।
বিশেষ করে আমাদের উর্বর ভূমির উপর ছোবল মারার জন্য উৎপেতে বসে আছে একটি হায়েনার দল।
সুযোগ পেলেই হিংস্র ছোবলে জর্জরিত হতে পারে বাংলাদেশের পার্বত্য চট্টগ্রাম।
দেশ বিরোধী চক্রান্তে লিপ্ত হায়েনার দলের প্রধান প্রতিবন্ধক হচ্ছে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী।
সকল ষড়যন্ত্রের জাল ছিন্ন করে দেশের স্বাধীনতা এবং সার্বভৌমত্বে অক্ষুন্নত রাখতে সেনাবাহিনী তার মেধা এবং প্রশিক্ষণ যাথাযথভাবে কাজে লাগাচ্ছে।
নিজের জীবনের নিরাপত্তার কথা চিন্তা না করে অখণ্ড বাংলাদেশকে টিকিয়ে রাখতে সেনাবাহিনী তার নিরলস প্রচেষ্টা অব্যাহত রেখেছে।
দেশপ্রেমিক সেনাবাহিনীর এসব কার্মকাণ্ড দেশ বিরোধী কুচক্রী মহল মোটেও মেনে নিতে পারছে না।
তাই দেশদ্রোহী কুচক্রী মহলটি কথায় কথায় সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ এনে সেনাবাহিনীকে বিতর্কিত করার ষড়যন্ত্রে লিপ্ত থাকে।
কুচক্রী মহলটি মূলত সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে না, ওরা দেশের অখণ্ডতার বিরুদ্ধে।
সেনাবাহিনীকে দমাতে পারলেই তারা তাদের পরিকল্পনা মাফিক পার্বত্য চট্টগ্রামকে বাংলাদেশ থেকে বিচ্ছিন্ন করতে পারবে।
এমতাবস্থায় যারা পার্বত্য চট্টগ্রামে সেনাবাহিনীর অবস্থান নিয়ে বিরুপ মন্তব্য করবে তাদেরকে দেশের অখণ্ডতা রক্ষায় অবিলম্বে গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিতে হবে।

মতামত

x