Home / অপরাধ / পাহাড়ে উপজাতি কিশোর কিশোরীদের অস্ত্র প্রশিক্ষণের রমরমা প্রস্তুতি!!

পাহাড়ে উপজাতি কিশোর কিশোরীদের অস্ত্র প্রশিক্ষণের রমরমা প্রস্তুতি!!

তাপস কুমার পাল, রাঙ্গামাটি

পাহাড়ে উপজাতি কিশোর কিশোরীদের অস্ত্র প্রশিক্ষণের রমরমা প্রস্তুতি!!!
প্রয়োজন সশস্ত্র বাহিনীর নিয়মিত অভিযান।

পার্বত্য অঞ্চলে উপজাতি কিশোর কিশোরীদের অস্ত্র প্রশিক্ষণের রমরমা আয়োজন চলছে।
লোকচক্ষুর অন্তরালে উপজাতিরা তাদের উঠতি বয়সের কিশোর কিশোরীদের অস্ত্র প্রশিক্ষণ দিয়ে তা আবার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল করে সরকার বিরোধী মনোভাব চাঙ্গা করতে তৎপর হয়ে উঠেছে।
উপজাতি সন্ত্রাসীদের টার্গেট হচ্ছে কোমলমতি কিশোরদের সন্ত্রাসের দিকে ধাবিত করতে পারলে আজীবন তাদের নিয়ন্ত্রণে থাকবে।
ইদানীং লক্ষ করা যাচ্ছে অনার্স -মাস্টার্স কমপ্লিট করে যারা সন্ত্রাসী দলে যোগদান করে তারা আবার সন্ত্রাসের পথ পরিহার করে স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসতে শুরু করেছে।যা সন্ত্রাসীরা স্বাভাবিক ভাবে নিতে পারছেনা।
তাই কোন সন্ত্রাসী প্রশিক্ষণ দেয়ার পর যাতে স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসতে না পারে বা তাদের মন মগজে যাতে সর্বদা রাষ্ট্র বিরোধী মনোভাব তৈরি হয় সেজন্য কিশোর বয়সে তাদেরকে প্রশিক্ষণের আওতায় নিয়ে আসতে সন্ত্রাসীদের এটা নতুন কৌশল।
কিন্তু দুর্ভাগ্যজনক হলেও সত্য উপজাতি সন্ত্রাসীরা তাদের এ সন্ত্রাসী কার্য্যকলাপ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচারণা চালালেও পাহাড়ের প্রশাসন তাদেরকে আশানুরূপ গ্রেফতার করতে পারছেনা।
ফলে তারা উজ্জীবিত হয়ে দ্বিগুণ গতিতে সন্ত্রাসী কার্যকলাপে লিপ্ত হচ্ছে।
সত্যিকারার্থে পুলিশ প্রশাসনের পক্ষে উপজাতি সন্ত্রাসীদের নির্মূল করা মোটেও সম্ভব না।সশস্ত্র বাহিনী নামে মাত্র যা আছে তা জেলা শহর কেন্দ্রীক হওয়াতে গহিন বনাঞ্চল অরক্ষিতই থেকে যাচ্ছে।
অরক্ষিত বনাঞ্চলে সন্ত্রাসীরা তাদের অস্ত্র প্রশিক্ষণ নিরাপদে করে চলছে।
উপজাতি কিশোর কিশোরীদের ভবিষ্যত অন্ধকার থেকে মুক্তি এবং দেশের সার্বভৌমত্বের হুমকি থেকে বাচার জন্য পাহাড়ে স্থায়ী সেনা ক্যাম্প বৃদ্ধি করণের সাথে সাথে জরুরি ভিক্তিতে সেনাবাহিনীর নেতৃত্বে পার্বত্য অঞ্চলে যৌথবাহিনীর অভিযান পরিচালনা করা দরকার।

মতামত

x