Home / রাঙামাটি / সুরেশ কান্তি তংচঙ্গ্যা হত্যার ঘটনায় মামলা, সাবেক পিসিপি নেতা আটক।

সুরেশ কান্তি তংচঙ্গ্যা হত্যার ঘটনায় মামলা, সাবেক পিসিপি নেতা আটক।

||নিজেস্ব প্রতিনিধি||

হিল নিউজ বিডি.কম- পার্বত্য রাঙ্গামাটি জেলার বিলাইছড়ি উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সুরেশ কান্তি তংচঙ্গ্যা হত্যাকাণ্ডের ৯৬ ঘন্টা পরে মামলা করেছে উপজেলা যুবলীগের অর্থ সম্পাদক মনির হোসেন। সুরেশ কান্তি তংচঙ্গ্যা’র পরিবারের পক্ষ হতে কেউ ভয়ে মামলা করেনি। তাই বাদী হয়েছে সহযোগী অঙ্গসংগঠনের নেতা মনির হোসেন। বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান শুভ মঙ্গল চাকমাসহ ২০ জনের নাম উল্লেখ ও অজ্ঞাত আরো ৮ জনকে আসামী করে বিলাইছড়ি থানায় হত্যা মামলা দায়ের করে৷ মামলা দায়েরের বিষয়টি নিশ্চিত করে বিলাইছড়ি থানার অফিসার ইনচার্জ পারভেজ আলী।

আসামিদের মধ্যে বেশিরভাগই চুক্তি পক্ষ পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতি (পিসিজেএসএস) নেতাকর্মী।

গত ১৯ মার্চ মঙ্গলবার উপজেলার ফারুয়া ইউনিয়ন হতে উপজেলা সদরে ফেরার পথে আলিখ্যং নামক এলাকায় ইঞ্জিন চালিত বোট থেকে বিলাইছড়ি উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সুরেশ কান্তি তংচংঙ্গ্যাকে নামিয়ে স্ত্রী ও সন্তানের সামনে গুলি করে হত্যা করে সন্ত্রাসীরা। রাঙ্গামাটি জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হাজী মুছা মাতবর অভিযোগ করে বলেন, হত্যাকারীরা সন্তু লারমার জেএসএস সন্ত্রাসী। আপনারা সাংবাদিকেরা দুর্বৃত্ত লেখেন কেন? জেএসএস সন্ত্রাসী লিখবেন। যদিও জেএসএস ঘটনার সাথে জড়িত থাকার কথা অস্বীকার করে বিবৃতি দিয়েছে।

মামলার এজহারভুক্ত আসামি স্নেহাশীষ চাকমা প্রকাশ আশিষ কে ২৩ মার্চ শনিবার সকাল বেলা জেলা শহরের বনরুপা বলপিয়ে আদম এলাকা থেকে গ্রেফতার করে যৌথবাহিনী। স্নেহাশীষ চাকমা প্রকাশ আশিষ বনরুপা সমতাঘাট ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি। গ্রেফতারকৃত আসামী পার্বত্য চট্টগ্রাম জন সংহতি সমিতি (পিসিজেএসএস) সমর্থিত ছাত্র সংগঠন পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের সাবেক নেতা ছিলো।

এদিকে সদর থানার অফিসার্স ইনচার্জ মীর জাহিদুল হক রনি বলেছেন, সকালে যৌথবাহিনী অভিযান চালিয়ে স্নেহাশীষ চাকমা প্রকাশ আশিষকে গ্রেফতারের পর পুলিশে হস্তান্তর করা হয়েছে।

মতামত

x